ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি কি কি, ছবি আঁকার সরঞ্জাম সম্পর্কে জ্ঞান। ছবি আঁকতে কি কি লাগে?

ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি কি কি, ছবি আঁকার সরঞ্জাম সম্পর্কে জ্ঞান। ছবি আঁকতে কি কি লাগে?

ছবি আঁকতে ভালো লাগে না এমন বাচ্চা খুবই কম পাওয়া যায়। আপনার ঘরে মেঝেতে দেওয়ালে যেখানে সেখানে আপনি যদি আঁকি বুকি কে দেখতে পান, তাহলে ভাববেন আপনার বাচ্চার মধ্যে ছবি আঁকার ইচ্ছা আছে। তাকে দেয়াল ও মেঝেতে না আখতে দিয়ে ছবি আঁকার জিনিসপত্র খাতা পেন্সিল এবং রং কিনে দিন দেখবেন আপনাকে একদিন সে তার ভবিষ্যৎ তৈরী করে দেখাবে। এখন তো প্রায় প্রতিটি স্কুলে ছোটদের জন্য পাঠ্যক্রমের সঙ্গেও ছবি আঁকা যোগ করা হয়ে গেছে। তাই অভিভাবকরা টেলিভিশন এবং ফেসবুকের পিছনের না পড়ে থেকে, বাচ্চাদের পিছনে পড়ুন এবং তাদের ছবি আকা শেখান, দেখবেন তার ভবিষ্যৎ অনেক উজ্জ্বল রঙিন করে তুলবে। বর্তমান সময়ে অনেক উপায় আছে ছবি আঁকা শেখানোর, কাছাকাছি যদি ছবি আঁকার ক্লাস থাকে সেখানে ভর্তি করতে পারেন এবং ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি কিনে দিন। অথবা ইন্টারনেটের মাধ্যমে ইউটিউব গুগলের মাধ্যমে আপনি আপনার বাচ্চার জন্য ছবি আঁকা শেখানোর ব্যবস্থা করতে পারবেন। আজকে আমরা ছবি আঁকার নানা ধরনের ম্যাটেরিয়ালসের বা ছবি আঁকার জিনিসপত্র এর বিষয়ে আলোচনা করবো, যেগুলো আপনার বাচ্চার ছবি আঁকা শিখতে হবে সহযোগিতা করবে।

ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি কি কি, ছবি আঁকার সরঞ্জাম সম্পর্কে জ্ঞান। ছবি আঁকতে কি কি লাগে?

ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি কি কি, ছবি আঁকার সরঞ্জাম সম্পর্কে জ্ঞান। ছবি আঁকতে কি কি লাগে?

পেন্সিল:

ছবি আঁকার জিনিসপত্র এর মধ্যে গুরুত্যপূর্ণ হলো পেন্সিল। পেন্সিল এর জন্য আপনাকে অনেক বেশি টাকা খরচা করতে হবে না, কম টাকাতেই আপনি আপনার বাচ্চার জন্য ছবি আঁকার ব্যবস্থা করতে পারবেন। প্রধানত 2B, 4B, 6B, 8B, 10B  পেন্সিল দিয়ে আপনি আপনার বাচ্চার ছবি আঁকা শুরু করাতে পারেন প্রথম প্রথম ছবি আঁকার জিনিসপত্র এর মধ্যে এগুলি খুব জরুরি। অথবা আপনি ছবি আঁকার জিনিসপত্র এর ভ্যারাইটি সেট পেন্সিল আপনার বাচ্চার জন্য কিনে দিতে পারেন।

ইরেজার ও শার্পনার:

ছবি আঁকার জিনিস পত্রের মধ্যে আরো দুটি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হল ইরেজার ও শার্পনার। কমলা, গাড়ি, আপেল আকৃতির মতো বিভিন্ন রঙের ইরেজার মাত্র 5 থেকে 30 টাকার মধ্যেই পেয়ে যাবেন। আপনি চাইলে বেশি দামে নিতে পারেন এবং চাইলে কম দামের ও নিতে পারেন, কোন অসুবিধা নেই তাতে। শার্পনার গুলো রয়েছে বিভিন্ন আকৃতির বিভিন্ন বাহারের- ক্যামেরা কৃতি শার্পনার পাওয়া যাবে গাড়ি আকৃতি শার্পনার পাওয়া যাবে, বিভিন্ন ধরনের 5 থেকে 7০ টাকা দামের মধ্যে পড়বে আপনি আপনার পছন্দ মত নিয়ে নিন।

স্কেল:

ছবি আঁকার জিনিস পত্রের মধ্যে একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ জেনিস হলো স্কেল। আপনার পছন্দমত বাজার থেকে একটি সুন্দর স্কেল কিনে নিন। পাঁচ টাকা, দশ টাকা, 15 টাকা, কুড়ি টাকা, 30 টাকা অনেক দামে পাওয়া যাবে, আপনার পছন্দ মত নিয়ে নিন। তবে স্কেল এর এর মধ্যে আয়তাকার বৃত্ত ইত্যাদি বিভিন্ন আঁকিবুকি থাকে, সেগুলো সমেত কিনবেন। একই দাম নেবে, তাতে বাচ্চার ছবি আঁকতে অনেক সুবিধা হবে।

কাগজ ও ড্রয়িং বুক:

আপনি আপনার বাচ্চার জন্য সুন্দর দুটি খাতা কিনে দিন। ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি মধ্যে এগুলি সবচে গুরুত্ব পূর্ণ। যাতে খুব সুন্দর সুন্দর ছবি এঁকে আপনাকে খুশি করতে পারেন, ও তার ইচ্ছামত প্র্যাক্টিস করতে পারে। বিভিন্ন রকমের ড্রয়িং বুক এখন পাওয়া যায় বাজারে। ক্লাসমেটের ড্রইংবুক খুবই ভালো। আপনি ক্লাসমেট কোম্পানির ড্রয়িং বুক কিনতে পারেন অথবা এখন নতুন নতুন আরও অনেক ধরনের ড্রয়িং খাতা উঠেছে এগুলো থেকে আপনি কিনতে পারেন। ২০ টাকা থেকে শুরু করে 150 টাকার মধ্যে বিভিন্ন রকমের ড্রয়িং বুক পেয়ে যাবেন, আপনার যেটা ইচ্ছা আপনি কিনে দেবেন। এছাড়া ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি মধ্যে আছে বিভিন্ন ধরনের আর্ট পেপার, হ্যান্ডমেড পেপার ও কার্টিস পেপার। প্রয়োজনমতো যখনই যেমন দরকর পড়বে, একটু একটু করে উপরের লেভেলের দিকে যাবে, তখন আপনি আপনার বাচ্চার জন্য এ সমস্ত জিনিস কিনতে পারবেন। আপাতত দুটো ড্রইং খাতা কিনুন।

ছবি আঁকার রং:

ছোট ছোট বাচ্চাদের জন্য অনেক ধরনের রং পাওয়া যায়, ছবি আঁকার জিনিসপত্র এর মধ্যে একদম ছোটদের জন্য ওয়েল পেস্টেল বিভিন্ন রকমের কালার আপনি মার্কেটে পাবেন। কিন্তু একটু টাকা খরচা করে যদি আপনার বাচ্চার জন্য 25 সেটের অয়েল প্যাস্টেল কালার টি কিনে দেন তাহলে খুব সুন্দর ভাবে ছবি আঁকতে পারবে। অন্যান্য কালার স্কেচ পেন্সিল এবং অন্যান্য সমস্ত কালার এ আপনার বেশি টাকা খরচা না করে যদি এই কালারটা কিনে দেন তাহলে আপনার বাচ্চা প্রফেশনাল তরিকায় খুব সুন্দর ছবি আঁকতে পারবে। ইন্টারনেটের মাধ্যমে যখনই আপনার বাচ্চা কোন ছবি আঁকতে যাবে তখন এই কালার এর ব্যবহার আপনি অনেক বেশি পাবেন। এছাড়া আছে জল রং, অয়েল কালার, এক্রেলিক কালার। ছবি আঁকার জিনিসপত্র এর মধ্যে জল রং বা ওয়াটার কালার খুবই গুরুত্যপূর্ণ। ওয়াটার কালার তখন কিনে দেবেন যখন আপনার বাচ্চা একটু সিনিয়র লেভেলে চলে যাবে, তখন ওয়াটার কালারের দরকার পড়বে। ওয়াটার কালার কমপ্লিট হওয়ার পরে আপনি কিনে দেবেন এক্রেলিক কালার, তখন ক্যানভাসের প্রয়োজন পড়বে। এবং এক্রেলিক কালার কমপ্লিট হওয়ার পর আপনাকে অয়েল কালার এর ব্যবহার শেখাতে হবে। ছবি আঁকার জিনিসপত্র আপাতত এই পর্যন্তই আর্টিস্টের কালার লেভেলের মাধ্যম চলে আসছে। আশাকরি আপনার বাচ্চা খুব সুন্দর ছবি আঁকা শিখতে পারবে এবং বড় হবে ভবিষ্যতে বড় আর্টিস্ট হবে এবং তার ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল করবে।

ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি কি কি, ছবি আঁকার সরঞ্জাম সম্পর্কে জ্ঞান, ছবি আঁকতে কি কি লাগে, ছবি আঁকার জিনিসপত্তর, আঁকাআঁকির জিনিসপত্তর, ছবি আঁকার জন্য কোন পেন্সিল ভালো, পোস্টার কালার কি, মানুষের ছবি আঁকার কৌশল

ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি কি কি, ছবি আঁকার সরঞ্জাম সম্পর্কে জ্ঞান। ছবি আঁকতে কি কি লাগে?

তুলি:

বিভিন্ন ধরনের তুলি পাওয়া যায় বাজারে, ছবি আঁকার জিনিসপত্র এর মধ্যে এগুলি গুরুত্যপূর্ণ। আপনি আপনার পছন্দমত তুলে কিনে নেবেন। তুলির সেট পাওয়া যায়, আপনি একটি সেট তুলি কিনে নিতে পারেন। তুলির সঙ্গে সঙ্গে কালার পেন্সিল নেবেন, তুলি বা কালার প্লেট আপনি তখনই কিনবেন যখন আপনার বাচ্চা জল রঙের ছবি আঁকতে পারবে। প্যাস্টেল কালার এর ছবি আঁকালেন আপনাকে তুলি বা কালার প্লেট কিনতে হবে না, এগুলো দরকার পড়বে না।

“ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি কি কি” পোস্ট টি কেমন লাগলো জানাতে ভুলবেন না। আমরা এমনি “ছবি আঁকার জিনিসপত্র গুলি কি কি” ও অন্যান্য পোস্ট করতে ভালোবাসি, আপনারা এমনি আরো পোস্ট পাবার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটটি Subscribe করুন।

acrylic painting ideas

এক্রেলিক রং ও তেল রং এর পার্থক্য কী? তেল পেন্টিং কি? এক্রাইলিক কালার কি? What is oil painting? What is acrylic color?

তেলরং বহু প্রচলিত এবং এক্রেলিক রং ও বহু প্রচলিত। আমরা আজকে তেল রং এবং এক্রেলিক রঙের পার্থক্য জানবো এবং এর গুনাগুন জানব। আপনি যদি একজন নতুন শিল্পী হন, আপনি পেইন্টিং করতে ইচ্ছুক পেইন্টিং করতে আপনার ভালো লাগে, তাহলে আপনার জন্য কোনটা ভাল হবে? তেল রঙ নাকি এক্রেলিক রং? সে বিষয়ে আলোচনা করব। তবে আমার পরামর্শ হচ্ছে আপনি প্রথম অ্যাক্রলিক রং দিয়ে নিজের হাতটাকে সেট করে নিন, তারপর ধীরে ধীরে তেলরঙের দিকে কনভার্ট হয়ে যান। নতুনদের জন্য যারা সবেমাত্র ওয়াটার কালার এবং ওয়েল পেস্টেল কালার কমপ্লিট করেছে তাদের জন্য এক্রেলিক কালার একটি সুন্দর উজ্জ্বল কালার, এটি ব্যবহার করে আপনি খুব সুন্দর ছবি আঁকতে পারবেন। তবে তেল রং হচ্ছে আলাদা মার্জিত কালার যা দিয়ে আপনি খুব সুন্দর ছবি আঁকতে পারবেন। তাই আপনি প্রথমত এক্রেলিক কালার তারপরে তেল রং দিয়ে ছবি আঁকুন। আমাদের পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন, আমরা আজকে তেল রং এবং এক্রেলিক কালার এর বিষয়বস্তু আলোচনা করব।

Asgar Molla

Hi i am Asgar, I am a Graphic Designer & Fine Artist. The "Best Messages" is my blogging website. I am working on Varity of wishes, as like Happy Birthday, Happy Anniversary, Good Morning and Night post etc. You can read and share our messages and videos with your dear one. Thank you!

Leave a Reply

%d bloggers like this: